সচিবকে সোহেল তাজের চিঠি: পদত্যাগের পরও বেতন-ভাতা কেন

পদত্যাগ করার পরও কেনো বেতন-ভাতা তার একাউন্টে দেয়া হচ্ছে এবং এখনো পদত্যাগের গ্যাজেট নোটিফিকেশন কোনো হয়নি, তা জানতে চেয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের কাছে দু’টি চিঠি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেয়া আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল তাজ।

মঙ্গবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের কাছে তার এক বাহক মারফত এ চিঠি দুটি পাঠান তিনি।

প্রথম চিঠিতে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে মাসিক পারিতোষিক ও ভাতাদির বিষয় উল্লেখ করেন সোহেল তাজ। আর দ্বিতীয় চিঠিতে পদত্যাগের পরেও কোনো এখন পর্যন্ত গ্যাজেট নোটিফিকেশন জারি করা হয়নি সি বিষয়টি উল্লেখ করেন তিনি। তবে দুটি চিঠিতেই কিভাবে বেতনভাতা তার একাউন্টে জমা হচ্ছে, তা উল্লেখ করেন সোহেল তাজ।

প্রথম চিঠিতে বলা হয়, ‘‘আমি ৩১ মে ২০০৯ সালে প্রতিমন্ত্রী থেকে পদত্যাগ করি। এর পরেও ন্যাশনাল ব্যাংকের ধানমন্ডি শাখায় আমার নামে টাকা জমা হচ্ছে।’’ কেনো টাকা জমা হচ্ছে তা মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে চিঠির মারফত জানাতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে তিনি লিখেন, ‘‘সংবিধানের ৫৮ (ক) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ৩১ মে ২৯৯০ আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার পদত্যাগ পত্র দেই। অথচ এতা দিনেও পদত্যাগের বিষয়টি গ্যাজেট নোটিফিকেশন হিসেবে জারি করা হয়নি।’’ ২০০৯ সালে পদত্যাগের পরেও টাকা জমা হচ্ছে উল্লেখ করে চিঠিতে বলা হয়, ‘‘এই টাকার জন্য সরকার, প্রধানমন্ত্রী এবং আমার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে।’’

চিঠিতে আরো বলা হয়, মন্ত্রী থাকাকালে প্রতিমন্ত্রী নিজে বেতন-ভাতার বিলে সাক্ষর করতেন। পদত্যাগের পরে কিভাবে বেতন-ভাতা তার একাউন্টে জমা হচ্ছে তা জানতে চাওয়া হয়েছে। এসব বিষয় উল্লেখ করে মন্ত্রি পরিষদ সচিবকে চিঠির মাধ্যমে এর উত্তর দেয়ার জন্যও বলা হয়।

এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসেইন ভূঁইঞা সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘তিনি এখনো দফতর বিহীন মন্ত্রী। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে হবে।’’

সোহেল তাজ স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে অব্যাহতি নিতে পদত্যাগ পত্র জমা দেন ২০০৯ সালের ৩১ মে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েই তিনি চলে যান দেশের বাইরে। ২০১০ সালের জানুয়ারিতে দেশে ফিরে এসে তিনি প্রতিমন্ত্রীর প্রটোকল নেননি। এর পরে তার ব্যাংক একাউন্টে প্রতিমন্ত্রীর বেতন-ভাতা পাঠানো হলেও তিনি তা উঠাননি।

সর্বশেষ বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের কাছে বেতন-ভাতা কোনো পাঠানো হচ্ছে এবং সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে তার বাহক মারফত চিঠি পাঠান সোহেল তাজ।

সৌজন্যে: বার্তা২৪ ডটনেট

Advertisements

আপনার মন্তব্য এখানে লিখুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: